Wednesday June 26, 2019
দর্শনীয় স্থান
13 September 2017, Wednesday
সুন্দরবন দেখুন আকাশলীনায়
ফাস্টনিউজ ডেস্ক : বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবনের কাছে অবস্থিত আকাশলীনা ইকোট্যুরিজম। এখান থেকেই খুব কাছ থেকেই উপভোগ করা যায় সুন্দরবনের মনোরম পরিবেশ। জায়গাটি কয়েক বছর আগেও ছিলো নদীর চর ভরাটি পতিত জমি। জেলার শ্যামনগর উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে তৈরীকৃত আকাশলীনা ইকোট্যুরিজম সেন্টারটি এখন বিনোদনের জন্য জেলার অন্যতম কেন্দ্র হিসেবে ইতোমধ্যে পর্যটকদের আকৃষ্ট করেছে।

সুন্দরবনের কোল ঘেষে চুনা নদীর পাড়ে মনোরম পরিবেশে সুন্দরবন ভিত্তিক এ পর্যটন কেন্দ্রটি মন কেড়েছে পর্যটকদের। ছুটির দিনে পর্যটকদের ব্যাপক আগমনে পরিপূর্ণতা পায় আকাশলীনা ইকোট্যুরিজম সেন্টার। রয়েছে আব্দুস সামাদ মৎস্য মিউজিয়াম। বিলুপ্ত ও বিলুপ্ত প্রায় দেশীয় প্রজাতির মাছ ও জলে বাস করা বিভিন্ন জলজ প্রাণীর সাথে নতুন প্রজন্মকে পরিচয় করিয়ে দিতেই এই ব্যতিক্রম ধরনের জাদুঘর। যা উপকূলবর্তী মানুষের জীবনচিত্র সম্পর্কে পর্যটকদের মনে করিয়ে দিবে।

বিশ্ব ঐতিহ্য সুন্দরবন আজ অনেকটা ধ্বংসের মুখে। সর্ববহৎ ‘ম্যানগ্রোভ’ বা শ্বাসমূলীয় বন। যার নাম শুনলেই চোঁখের সামনে ভেসে উঠে রয়েল বেঙ্গল টাইগারের ছবিটা। ভ্রমণ পিপাসু মানুষরা কেবল জোয়ার ভাটার বৈচিত্র্যই নয়। সুন্দরবনের এক এক এলাকার বৈশিষ্ট্য ও সৌন্দর্য দেখে বিমোহিত। তৃপ্তি মেটে না এসব মানুষের। আর তাই নতুন অভিজ্ঞতা আর নতুন-নতুন বৃক্ষ, মাছ আর পাখিদের সঙ্গে পরিচিত হতে প্রতি বছরই আগমন ঘটে এখানে লাখো মানুষের।

পশ্চিম সুন্দরবন সাতক্ষীরা রেঞ্জের সহকারী বন-সংরক্ষক মাকসুদ আলম বলেন, বর্তমানে পর্যটকদের আগমন বেড়েছে বিধায় সরকারের রাজস্ব আয়ও চলেছে। আকাশলীনা থেকে সুন্দরবনকে খুব কাছ থেকে উপভোগ করা যায়। যার কারণে আকাশলীনা ইকোট্যুরিজম সেন্টার পর্যটকদের আকৃষ্ট করেছে।

তিনি বলেন, সাতক্ষীরা-মুন্সিগঞ্জ সড়কটি সংস্কার প্রয়োজন। তবে একদিকে যেমন এলাকার মানুষ উপকৃত হবে তেমনি বিদেশী পর্যটকদের আগমন আরো বাড়বে।

আকাশলীনা প্রকল্প প্রণয়ন ও বাস্তবায়নকারী শ্যামনগর উপজেলার সাবেক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আবু সায়েদ মোঃ মনজুর আলম বলেন, শ্যামনগর উপজেলায় প্রায় ৪০টি প্রাচীন স্থাপত্য ও দর্শনীয় স্থান আছে।

এ প্রকল্পটির ফলে পর্যটকরা এসকল স্থাপত্য ও দর্শনীয় স্থান একই সাথে স্বাচ্ছন্দে ভ্রমণ করতে পারছে। সুন্দরবন ভিত্তিক জীবিকা নির্ভর মানুষদের আর্থ সামাজিক উন্নয়ন ও কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে। একবার আকাশলীনা ইকোট্যুরিজম ভ্রমণ করলে পর্যটকরা আবারো ভ্রমণ করতে চাইবেন এ স্থানটি। সুন্দরবনকে খুব কাছ থেকে উপভোগ করতে পারবেন আকাশলীনায়।

১৩.০৯.২০১৭/ফাস্টনিউজ/এআর/১১.৪০
দর্শনীয় স্থান :: আরও খবর