Thursday June 20, 2019
জনদুর্ভোগ
24 November 2017, Friday
বিদ্যুতের দাম বাড়ায় জনজীবনে প্রভাব পড়বে না: জ্বালানি উপদেষ্টা
ফাস্টনিউজ, ঢাকা: বিদ্যুতের দাম বাড়ায় জনজীবনে এর কোনো প্রভাব পড়বে না বলে মন্তব্য করেছেন প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি বিষয়ক উপদেষ্টা তৌকিফ ই ইলাহী।

শুক্রবার সকালে বিদ্যুৎ ভবনে লিডারশিপ ওয়ার্কশপের উদ্বোধন শেষে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এ মন্তব্য করেন।

 সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তৌফিক ই ইলাহী বলেন, ইনশাআল্লাহ কোনো প্রভাব পড়বে না। একই প্রশ্ন আবার করা হলে তিনি বলেন, মামুলি প্রভাব ফেলবে বলে আশা করছি। খুবই অল্প। এটা নিয়ে রাজনীতি করার কিছু নেই।

তিনি বলেন, রেগুলেটরি কমিশন সব কিছু বিবেচনায় নিয়েই মূল্য নির্ধারণ করেছেন। এ বিষয়ে আমি কিছু বলতে পারবো না। তবে আমাদের তথ্য অনুযায়ী, সাম্প্রতিক মূল্যবৃদ্ধির পরও বিদ্যুতে ৪ হাজার কোটি টাকা ঘাটতি থাকে। তবে প্রধানমন্ত্রী টাকাকে ঘাটতি না বলে দেশের আর্থসামাজিক উন্নয়নের বিনিয়োগ বলে উল্লেখ করেন। এখন দেশের ৮৪ ভাগ লোক বিদ্যুৎ পাচ্ছে। আমরা চাই বাংলাদেশের সবাই বিদ্যুৎ পাক। এজন্য বিদ্যুতের সম্প্রসারণ লাগবে। বিদ্যুৎ বলেন আর যাই বলেন, এক জায়গায় ভর্তুকি কমালে আরেক জায়গায় বাড়ে।

উল্লেখ্য, গতকাল বৃহস্পতিবার আবার বিদ্যুতের দাম বাড়ার ঘোষণা দিয়েছে সরকার। পূর্বের তুলনায় ৫ দশমিক ৩ শতাংশ দাম বৃদ্ধির ঘোষণা আসায় এখন বিদ্যুতের দাম প্রতি ইউনিটে বাড়বে ৩৫ পয়সা। বৃহস্পতিবার বিকালে এক সংবাদ সম্মেলনে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন- বিইআরসি বিদ্যুতের দাম বাড়ানোর ঘোষণা দেয়।

সংবাদ সম্মেলনে বিইআরসি জানায়, নতুন এ হার কার্যকর হবে আগামী ডিসেম্বর থেকে। সর্বশেষ ২০১৫ সালের ১ সেপ্টেম্বর বিদ্যুতের দাম গড়ে ২ দশমিক ৯৩ শতাংশ বাড়িয়েছিল সরকার। তাতে মাসে ৭৫ ইউনিট পর্যন্ত ব্যবহারকারীদের খরচ বাড়ে ২০ টাকা; ৬০০ ইউনিটের বেশি ব্যবহারে খরচ বাড়ে কমপক্ষে ৩০ টাকা। চলতি বছর মার্চে বিভিন্ন খাতে গ্যাসের দাম ৫০ শতাংশ পর্যন্ত বাড়ার পর বিদ্যুতের দাম সমন্বয়ের কথা বলেন জ্বালানি প্রতিমন্ত্রী নসরুল হামিদ বিপু। এর পর এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন গত সেপ্টেম্বরে বিতরণ কোম্পানিগুলোর প্রস্তাব যাচাই-বাছাই করে শুনানির আয়োজন করে। সেখানে পাইকারিতে প্রতি ইউনিট বিদ্যুতের দাম প্রায় ১৫ শতাংশ এবং গ্রাহক পর্যায়ে ৬ থেকে সাড়ে ১৪ শতাংশ বাড়ানোর প্রস্তাব আসে।

এর মধ্যে ডিপিডিসি গ্রাহকপর্যায়ে ৬ দশমিক ২৪ শতাংশ, ডেসকো ৬ দশমিক ৩৪, ওজোপাডিকো ১০ দশমিক ৩৬, আরইবি ১০ দশমিক ৭৫  এবং পিডিবি ১৪ দশমিক ৫ শতাংশ দাম বাড়ানোর প্রস্তাব দেয়।
শীর্ষ নিউজ/জে

২৪.১১.২০১৭/ফাস্টনিউজ/এআর/১২.০০
জনদুর্ভোগ :: আরও খবর